ভক্তের সঙ্গে সাকিবের আসলে কী হয়েছিল

0
44

সমর্থকদের দিকে সাকিবের তেড়ে যাওয়ার একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। যিনি লডারহিলে জেতার পর ‘ল্যাপ অব অনার’ দিয়েছেন, মাঠের চারদিকে ঘুরে দর্শকদের সঙ্গে আনন্দ ভাগাভাগি করে নিয়েছেন; তাঁর সঙ্গে কী এমন হয়েছিল, যে এভাবে চটে গেলেন?
ম্যাচ শেষ হোটেলে ফিরছিলেন সাকিব আল হাসান। লবিতে সমর্থকদের ভিড়। এক সমর্থকের সঙ্গে হঠাৎ তর্ক লেগে গেল। একপর্যায়ে সমর্থকের দিকে তেড়ে গেলেন, আপত্তিকর ভঙ্গি। এখানেই শেষ নয়। চলে যেতে গিয়েও আবার ফিরলেন। ভীষণ উত্তেজিত সাকিব আরেকবার তেড়ে গেলেন। পরে পরিস্থিতি সামলালেন তামিম ইকবালসহ কয়েক সতীর্থ। সমর্থকদের দিকে সাকিবের এই তেড়ে যাওয়ার ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। চলছে নানা গুঞ্জন।Eprothomalo







সাকিব লডারহিলে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে সিরিজ জেতার পর ‘ল্যাপ অব অনার’ দিয়েছেন, মাঠের চারদিকে ঘুরে দর্শকদের সঙ্গে আনন্দ ভাগাভাগি করে নিয়েছেন; তাঁর সঙ্গে কী এমন হয়েছিল, যে এভাবে চটে গেলেন? দলীয় সূত্রে জানা গেছে, ঘটনা ঘটেছে কাল ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচের পর। মাঠ থেকে খেলোয়াড়েরা ফিরছিলেন টিম হোটেলে। লবিতে তখন জড়ো হয়েছেন প্রায় ২০০ থেকে ৩০০ সমর্থক। বেশির ভাগই বাংলাদেশি প্রবাসী। ক্রিকেটারদের নিয়ে সমর্থকদের মধ্যে শুরু হয়ে যায় মাতামাতি। সেলফি তোলার হিড়িক। আর সই নেওয়ার মিছিল।







এর মধ্যে এক সমর্থক সাকিবের সঙ্গে সেলফি তুলতে চেয়েছেন। অটোগ্রাফ চেয়েছেন, ভিডিও করতে চেয়েছেন। সাকিব সেলফি অথবা অটোগ্রাফ এই দুইয়ের একটি আবদার মিটিয়েছেন বলে দলের সেই সূত্র প্রথম আলোকে নিশ্চিত করে। সূত্রটি জানিয়েছে, ভক্তের চাওয়া ছিল আরও বেশি। ৪৬ দিনের দীর্ঘ সফর শেষে খেলোয়াড়েরা সবাই ভীষণ ক্লান্ত ছিলেন। সাধারণত সব সফরের শেষে এসে সবাইকে এমন ক্লান্তি পেয়ে বসে। সাকিব পারবেন না বলে সোজা হাঁটা দেন। এ সময়ই ওই সমর্থক অশালীন মন্তব্য করে বসেন। যার মূল বক্তব্য ছিল, সাকিব ভাব নিচ্ছেন। এতেই ভীষণ চটে যান বাংলাদেশের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক।







ওই সূত্রের বক্তব্য প্রথম আলো প্রত্যক্ষদর্শী আরও দুজনের কাছ থেকে শুনে নিশ্চিত করেছে। ঘটনা এটিই ছিল। সাকিবের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে ফ্লোরিডা থেকে তিনিও প্রথম আলোকে এমনটাই জানান।

হোটেলের নিরাপত্তাকর্মীরা ওই ভক্তকে সরিয়ে দেন। ভক্ত কী বলেছেন, ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে সেটি বোঝা যাচ্ছে না। তবে সাকিব যে তেড়ে আসছেন এবং অশ্লীল ভঙ্গিতে কিছু বলছেন, সেটি স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে। আর এতেই বিতর্কের মুখে পড়েছেন বাংলাদেশ টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক।







বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্টের এক সদস্য ফ্লোরিডা থেকে মুঠোফোনে বলছিলেন, ‘ওই ভক্ত সাকিবকে উত্ত্যক্ত করছিলেন। খেলার পর সে ভীষণ ক্লান্ত ছিল, তাকে যেভাবে বিরক্ত করা হচ্ছিল, একটা সময়ে নিজেকে ধরে রাখতে না পেরে অমন প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে। মানুষটা সাকিব আল হাসান বলেই এই প্রতিক্রিয়া নিয়ে নানা আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে। কিন্তু ভক্তদেরও একটু বোঝা উচিত, কখন ছবি তোলা কিংবা অটোগ্রাফ নেওয়া যায়, আর কখন যায় না। কখন কতটুকু আবদার করা যাবে। সেটি পূরণ না হলে আপনি কষ্ট পেতে পারেন বা হতাশ হতে পারেন। কিন্তু এমন কিছু বলা উচিত না, যেটা উসকানিমূলক।’