কোহলিকে ছুঁয়ে ফেললেন মুমিনুল, যা লিখলো ভারতীয় পত্রিকা

0
98

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ১ম টেস্টে বেশকিছু রেকর্ড গড়েছেন মমিনুল হক। মমিনুলের দূর্দান্ত পারফরম্যন্স নিয়ে ভারতীয় জনপ্রিয় গনমাধ্যম জ্বি নিউজ২৪ এক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। ‘বিরাট কোহলির রেকর্ড ছুঁয়ে ফেললেন বাংলাদেশের মোমিনুল’

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে টেস্ট সিরিজ খেলছে বাংলাদেশ। চলতি ম্যাচের প্রথম দিনেই সেঞ্চুকি হাঁকালেন মমিনুল হক। আর একইসঙ্গে ছুঁয়ে ফেললেন বিরাট কোহলির রেকর্ড। চলতি বছরে এই নিয়ে চারটি সেঞ্চুরি করলেন মমিনুল। ২০১৮-তে একই রেকর্ড রয়েছে বিরাটেরও।

তিন নম্বরে ব্যাট করতে নেমে এদিন মমিনুল বাংলাদেশকে ভরসা জুগিয়ে যান। দ্বিতীয় উইকেটে ইমরুল কায়েস ও মমিনুল মিলে ১০৪ রানের প্রয়োজনীয় পার্টনারশিপ খেলেন। প্রথম ওভারেই সৌম্য সরকারের উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ প্রাথমিক ধাক্কা খায়। তার পরই দলকে নির্ভরযোগ্য ইনিংস উপহার দিয়ে যান মমিনুল।

ম্যাচের পঞ্চাশতম ওভারে মমিনুল সেঞ্চুরি করেন। ১৩৫ বল খেলে সেঞ্চুরি করেন বাংলাদেশের এই টেস্ট স্পেশালিস্ট। জহুর আহমদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের সঙ্গে মুমিনুলের যেন আলাদা একটা সম্পর্ক রয়েছে। যেমনটা রয়েছে ইডেনের সঙ্গে ভিভিএস লক্ষ্ণণ বা রোহিত শর্মার। টেস্ট কেরিয়ারে এখনও পর্যন্ত আটটা সেঞ্চুরি করেছেন মমিনুল। তার মধ্যে ছটাই চট্টগ্রামের এই জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে। বাংলাদেশের আরও কোনও ব্যাটসম্যানের একই মাঠে এতগুলো সেঞ্চুরি নেই।

তবে এর আগে শ্রীলঙ্কার মাহেলা জয়বর্ধনের সিংহলিজ স্পোর্টস গ্রাউন্ডে ১১টি সেঞ্চুরি করার রেকর্ড রয়েছে। বিশ্ব ক্রিকেটে এটা একটা দৃষ্টান্ত। এর আগে এক মাঠে ছটি সেঞ্চুরি করার রেকর্ড রয়েছে গ্রাহাম গুচ, রিকি পন্টিং, ম্যাথু হেডেন ও মাইকেল ভনের। এবার এই চার ক্রিকেট কিংবদন্তির সঙ্গে এক খাতায় নাম লেখালেন মমিনুল। এর আগে এক মাঠে পাঁচটি করে সেঞ্চুরি করার রেকর্ড রয়েছে সচিন তেণ্ডুলকর, জ্যাক হবস, গ্যারফিল্ড সোবার্স, সুনীল গাওস্কর ও হাবার্ট সাটক্লিফের।

বাংলাদেশের হয়ে মমিনুলের টেস্ট অভিষেক হয়েছিল ২০১৩ সালে। এর পর গত পাঁচ বছরে মমিনুল করেছেন মাত্র চারটি সেঞ্চুরি। সেখানে চলতি বছরেই তিনি এখনও পর্যন্ত করে ফেললেন চারটি শতরান। বছরটা মমিনুলের কাছে পয়া, বলতেই হবে। এদিন মমিনুলের ইনিংস থামল ১২০ রানে। শ্যানন গ্যাব্রিয়েলের ডেলিভারিতে উইকেটের পিছনে ক্যাচ দিয়ে বসেন এই বাংলাদেশী ব্যাটসম্যান।