এদিকে মামলা-মানববন্ধন, ওদিকে প্রেমিকের সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গে সেই সঙ্গীতশিক্ষিকা

0
41

চট্টগ্রাম থেকে ‘নিখোঁজ’ হওয়ার সাত মাস পর সাংবাদিক দেবাশীষ বড়ুয়া দেবুর স্ত্রী সঙ্গীতশিক্ষিকা মনিকা বড়ুয়া রাধাকে (৪৫) উদ্ধার করেছে পুলিশ। সেই সাথে আটক করা হয়েছে তার ভারতীয় প্রেমিককেও। পুলিশের দাবি, কমলেশ কুমার মল্লিক নামে ওই ভারতীয় নাগরিকের সাথে স্বেচ্ছায় সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে চলে গিয়েছিলেন দুই মেয়ের মা রাধা।

দুপুরে সিএমপি কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ জানায়, ভারত থেকে ব্যবসায়িক কাজে ঢাকায় আসা কমলেশকে আটক করা হয় প্রথমে। তার মাধ্যমে রাধাকে মঙ্গলবার সাতক্ষীরার ভোমরা সীমান্তে আনা হয়। সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রামে নিয়ে আসা হয়।

চট্টগ্রাম নগরীর কাতালগঞ্জের লিটল জুয়েলস স্কুলে গান শেখাতেন রাধা। পুলিশের দাবি, প্রেমের সম্পর্ক হওয়ায় গত ১২ এপ্রিল কমলেশের সাথে পশ্চিমবঙ্গে চলে যান তিনি। সেখানে ধর্মীয় রীতিতে বিয়ের পর ভারতীয় পরিচয়পত্র এবং অন্যান্য কার্ডও তৈরি করেন।

গত ১২ এপ্রিল লালখান বাজারের হাই লেভেল রোডের বাসা থেকে গান শেখানোর জন্য বের হয়েছিলেন রাধা। এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন। এ বিষয়ে স্বামী দেবাশীষ গত ১৩ এপ্রিল নগরীর খুলশী থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। এরপর ২৮ এপ্রিল অপহরণ সন্দেহে মামলা করেন দেবাশীষ। মামলায় অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করা হয়।

এদিকে সঙ্গীতশিক্ষিকা মনিকা বড়ুয়া রাধাকে উদ্ধারের দাবিতে ঢাকা ও চট্টগ্রামে মানববন্ধনও অনুষ্ঠিত হয়। ৪ মে, বিকাল ৪টায় জাতীয় প্রেসক্লাব চত্ত্বরে প্রগতিশীল সংগঠনগুলোর অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনের প্রধান উদ্যোক্তা ছিলেন ওই সঙ্গীতশিক্ষিকারই বোন উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর সংগঠক মন্টি বৈষ্ণব। এছাড়া ৬ মে, বিকাল ৪টায় চট্টগ্রামের প্রেসক্লাব চত্ত্বরে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে অংশ নেন সাংবাদিক দেবাশীষ বড়ুয়া দেবু, যিনি একসময় ভালোবেসেই বিয়ে করেছিলেন রাধা বৈষ্ণব ওরফে মনিকা বড়ুয়াকে।