ভয়াবহ যে উপায়ে নেশা করছে ইন্দোনেশিয়ার তরুণ-তরুণীরা

0
73

ইন্টারনেটে গত কিছুদিন ধরেই ভাইরাল হয়ে উঠেছে এই সংবাদটি। তা হলো, ইন্দোনেশিয়ার তরুণ-তরুণীরা স্যানিটারি প্যাড ব্যবহার করে নেশা করছে। এমনকি কিছু সংবাদে দাবি করা হয়, তারা ইতোমধ্যেই ব্যবহৃত স্যানিটারি প্যাড দিয়ে নেশা করছে।

এই ঘটনা প্রথম জানা যায় ইন্দোনেশিয়ার মাদক নির্মূল বিভাগ প্রধানের বক্তব্য থেকে। জাওয়া পোস নামের একটি সংবাদপত্রের সাথে কথা বলার সময়ে তিনি জানান, নেশার মাধ্যম হিসেবে স্যানিটারি প্যাডকে বেছে নিয়েছে কেউ কেউ। এগুলোর ব্যবহার আইনের চোখে ঠিক অবৈধ নয় বলেই তা ব্যবহার করছে তারা।

ইন্দোনেশিয়ায় ১৩ থেকে ১৬ বছর বয়সীরা স্যানিটারি প্যাড পানিতে ফুটাচ্ছে। এতে এর ভেতরে থাকা রাসায়নিক ও জেল বের হয়ে আসে। এই পানি পান করলে হালকা নেশা হয়। এইভাবে নেশা করার প্রচলন বেশ কয়েক বছরের পুরনো। তবে স্যানিটারি প্যাডে থাকা কোন উপাদানটির জন্য নেশা হয় তা জানা যায়নি এখনো।

এই ঘটনায় ইন্দোনেশিয়ার দারিদ্র্যের বিষয়টি উঠে এসেছে। এই বিষয়ে একজন বিশেষজ্ঞ জানান, সাধারণত বস্তি এলাকায় এই ধরণের নেশার প্রবণতা বেশি দেখা যায়। দরিদ্র পরিবারের একটি শিশু যে বেশ মানসিক চাপে আছে এবং নেশা করে আনন্দ অনুভব করতে চায়, অথচ নেশা করার মতো টাকা নেই, তখন স্যানিটারি প্যাড ব্যবহারের মতো পরীক্ষামূলক কাজ করে তারা।

তবে এক্ষেত্রে ব্যবহৃত স্যানিটারি প্যাড দিয়ে নেশা করা হচ্ছে কিনা, সে বিষয়টি পরিষ্কার নয়। জানা গেছে, আগে তা করা হতো, কিন্তু এরপর তা করা বন্ধ হয়ে যায়। সুত্র: আইএফএলসায়েন্স