‘লোকে আমাকে সবসময় সেক্সি বলে’

0
404

বাংলা ছবির দর্শক তাঁকে দেখেছে ২০১৩ সালেই। শাশ্বত চট্টোপাধ্যায় অভিনীত কমেডি ফিল্ম ‘ডামাডোল’-এর কথা মনে আছে! ওই ছবিতে একটি আইটেম নম্বরে বেশ নজর কেড়েছিলেন ইনি। নাম নীহারিকা রাইজাদা।

এর পর আবার তাঁকে দেখা যায় মশান, ওয়ারিওর সাবিত্রি ছবিতে। আর এ বার তাকে দেখা যাবে ‘টোটাল ধামাল’ ছবি তে।

নীহারিকা তার এবারের ছবি ‘টোটাল ধামাল’ নিয়ে বেশ উত্তেজিত। তিনি বললেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলিংয়ের খারাপ ভালো দুইই আছে।’

মঙ্গলবার মুম্বাইয়ে নিজের ছবির প্রচারণায় নেমে এনডিটিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে একথা বলেন তিনি।

নীহারিকা বলেন, ‘ট্রোলিং ভালো এবং খারাপ উভয়ই। যে কেউ নিজের মতামত জানাতে পারেন। কেউ যদি আমাকে পছন্দ করেন, প্রশংসা করতে চান তারা তা করতেই পারেন। আর কেউ যদি তা না করেন তাতেও কোনও অসুবিধা নেই। তবে লোকে আমাকে সবসময় সেক্সি বলে।’

তিনি বলেন, ‘এটাকে যদি ট্রোলিং বলি তবে এটা সবসময় আমার সঙ্গে হয়। তবে খারাপ ট্রোলিং কাকে বলে আমি জানিনা। সেটা আমার সঙ্গে কখনও হয়নি।’

কথা ছিল আগামী ডিসেম্বরে মুক্তি পাবে ‘টোটাল ধামাল’। কিন্তু পরে মুক্তির দিন পরিবর্তন করা হয়। এ নিয়ে জানতে চাইলে নীহারিকা বলেন, ‘টোটাল ধামাল আগামী বছর রিলিজ হবে। নির্মাতারাই এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তাদের যদি মনে হয় আরেকটু সময় নেওয়া দরকার, তা হলে সমস্যা কোথায়।’

তিনি বলেন, ‘সিনেমাটি থ্রি ডি-তে শুটিং হয়েছিল। আশা করি পোস্ট প্রোডাকশন ভালোই হবে। আমরা বেস্টটাই দিতে পারবো। আগামী ভ্যালেন্টাইনস ডের পরে ছবি দর্শকরা দেখতে পাবেন। তবে আমি নিশ্চিত, যখনই রিলিজ হোক সিনেমাটি বক্স অফিসে সাড়া ফেলবে।’

ইন্দ্র কুমারের ‘টোটাল ধামাল’ ছবিতে নীহারিকা ছাড়াও রয়েছেন অনিল কাপুর, রীতেশ দেশমুখ, আরশাদ ওয়ারসি প্রমুখ।

উল্লেখ্য, নীহারিকা রাইজাদা পেশায় হৃদরোগ (কার্ডিওলজিস্ট)বিশেষজ্ঞ। তাও আবার সুদুর আমেরিকার বাল্টিমোরের জনস্‌ হপকিন্স হাসপাতাল তার কর্মস্থল। এমন একটি পেশা ছেড়ে নীহারিকা এখন বলিউড তারকা। তার আবেদনময়ী দেহ, মোহনীয় রুপ সাথে অভিনয় গুন মিলে তিনি এখন বলিউডের সিড়িতে। কোনো কারনে যদি পা হড়কে পড়ে না যান তা হলে তিনি অনেক দুর যাবেন এমিনটাই আশা করছেন বলি সমালোচকরা।