যেসব বলিউড তারকারা ধর্ম বদলেছেন!

0
537

ভালোবাসার জন্য সব কিছু করার সৌভাগ্য সবার হয় না। তবে ভালোবাসার জন্য অনেকেই ধর্ম পরিবর্তন করেন। সাধারণ মানুষের ধর্মবদল নিয়ে তেমন সাড়াশব্দ না হলেও যদি কোনো তারকা ধর্ম বদলান সেটা সবাই জানে এবং তা নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা কম হয় না। বলিউড জগতেও ধর্ম বদলানোর ঘটনা ঘটেছে অনেক। এঁদের মধ্যে বেশির ভাগই ভালোবাসা বা বিয়ের কারণে। তবে ব্যতিক্রমও আছে। অনেকেই শুধুমাত্র ধর্মবিশ্বাসের কারণেই ধর্ম বদলেছেন। বলিউডের খুব চেনা মুখগুলোর ধর্ম বদলানোর কারণ বা গল্পটা জেনে নেওয়া যাক।

১. এ আর রহমান: বলিউডের সুরস্রষ্টা এ আর রহমান বা আল্লাহ রাখা রহমান। অথচ ২২ বছর বয়স পর্যন্ত এ আর রহমান ছিলেন হিন্দুধর্মের অনুসারী। তখন তাঁর নাম ছিল আর এস দিলীপ কুমার। অল্প বয়সে বাবাকে হারিয়ে অর্থনৈতিকভাবে দুরবস্থায় পড়েছিল রহমানের পরিবার। রহমানের বাবা ছিলেন হিন্দু এবং মা ছিলেন মুসলিম। তাঁর মা ছিলেন পীর করিমুল্লাহ শাহ কাদরীর অনুসারী। ১৯৮৪ সালে যখন রহমানের ছোট বোন খুব অসুস্থ হয়ে পড়ে তখন দিশেহারা হয়ে পড়েছিলেন এ আর রহমান। সাহায্যের জন্য তিনি পীর করিমুল্লাহ শাহ কাদরীর কাছে গিয়েছিলেন। এরপরই রহমানের মধ্যে পরিবর্তন আসে এবং ১৯৮৯ সালে তিনি সপরিবারে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন।

২. ধর্মেন্দ্র এবং হেমা মালিনী: এখনো তাঁকে ‘ড্রিমগার্ল’ নামেই চেনে বলিউড। তাঁর প্রেমে পড়েছেন সমসাময়িক নায়করা। কিন্তু সঞ্জীব কুমার এবং জিতেন্দ্রর প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়ে হেমা প্রেমে পড়েছিলেন ধর্মেন্দ্রর। সে সময়ে ধর্মেন্দ্র ছিলেন বিবাহিত এবং তাঁর প্রথম স্ত্রী প্রকাশ কৌর বিবাহবিচ্ছেদে রাজি ছিলেন না। হিন্দু ধর্মমতে, প্রথম স্ত্রী জীবিত থাকাকালীন দ্বিতীয় বিয়ে করা যায় না। ধর্মের এই নিয়ম থেকে মুক্তি পেতে ধর্মেন্দ্র এবং হেমা মালিনী দুজনই ১৯৭৯ সালে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন এবং এরপরই তাঁরা বিয়ে করেন।

৩. নার্গিস দত্ত: ‘মাদার ইন্ডিয়া’ খ্যাত নার্গিস ছিলেন মুসলিম। মাদার ইন্ডিয়া ছবিতে তাঁর সহশিল্পী ছিলেন সুনীল দত্ত। ছবিতে নার্গিসের ছেলের ভূমিকায় অভিনয় করেন সুনীল। ছবির শুটিংয়ের সময় এক দুর্ঘটনায় সেটে আগুন লেগে যায় এবং নার্গিস আগুনের মধ্যে আটকা পড়েন। সে সময় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সুনীল দত্ত উদ্ধার করেন নার্গিসকে। তখনই সুনীল-নার্গিসের প্রেমের বিষয়টি জানাজানি হয়ে যায়। তবে বিয়ের সময় বাধা হয়ে দাঁড়ায় ধর্ম। সুনীলকে বিয়ে করার জন্য ধর্ম বদলান নার্গিস। মুসলিম থেকে হিন্দু হয়ে নির্মলা দত্ত নাম ধারণ করেছিলেন নার্গিস। যদিও নার্গিস দত্ত নামেই পরিচিত হন তিনি। সুনীল-নার্গিস দম্পতির সন্তান ‘মুন্না ভাই’ খ্যাত বলিউড অভিনেতা সঞ্জয় দ্ত্ত।

৪. শর্মিলা ঠাকুর: বঙ্গকন্যা শর্মিলা ঠাকুর নিজের সৌন্দর্য এবং অভিনয়দক্ষতা দিয়ে বলিউডে যে ঝড় তুলেছিলেন সেই ঝড় ক্রিকেটের ২২ গজেও পৌঁছে গিয়েছিল। তাই নিজের উইকেট বিসর্জন দিয়েছিলেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক এবং ব্যাটসম্যান মনসুর আলী খান পতৌদি। পতৌদির এই নবাব ছিলেন মুসলিম, তাই বিয়ের জন্য ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন শর্মিলা ঠাকুর।

৫. অমৃতা সিং: শর্মিলা ঠাকুরের পুত্রবধূ বলিউড অভিনেত্রী অমৃতা সিং। শিখ ধর্মের অনুসারী হলেও সাইফ আলী খানকে বিয়ে করার জন্য ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছিলেন অমৃতা। যদিও বিয়ের ১৩ বছর পর বিচ্ছেদ ঘটে সাইফ-অমৃতার।

৬. নাগমা: বলিউডের গ্ল্যামারাস অভিনেত্রী নাগমা ভালোবাসার জন্য ধর্ম বদল করেছিলেন। খ্রিস্টান ধর্ম গ্রহণ করে নাগমা বলেছিলেন, যিশুখ্রিস্ট তাঁর জীবনের একমাত্র ‘সুপারস্টার’।

৭. আয়শা তাকিয়া: কম ছবি করেও আলোচনায় ছিলেন অভিনেত্রী আয়শা তাকিয়া। তবে বিয়ের পর ঘর-সংসার নিয়েই বেশি ব্যস্ত তিনি। দীর্ঘদিন প্রেমের পর প্রেমিক ফারহান আজমিকে বিয়ে করেন আয়শা। আর সেজন্য ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছিলেন তিনি। আয়শা আর ফারহানের বিয়ে হয়েছিল পুরোপুরি ইসলামিক রীতিতে।

৮. মমতা কুলকার্নি: ৯০ -এর দশকে বেশ কয়েকটি হিন্দি সুপার হিট ছবির নায়িকা ছিলেন মমতা কুলকার্নি। হঠাৎই পর্দা থেকে উধাও হয়ে যান তিনি। জানা যায়, ২০১৩ সালে মমতা মুসলিম প্রেমিককে বিয়ে করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। বর্তমানে স্বামীকে নিয়ে কেনিয়া।